853 Views
ডিপিএল

বিকেএসপিতে অঘটন ঘটালো খেলাঘর

তামজিদুর রহমান
Published Date: 13 Feb 2018 | Update : 13 Feb 2018

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) এবারের আসরে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতির বিপক্ষে ৫ উইকেটে পরাজিত হয়েছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন গাজি গ্রুপ ক্রিকেটার্স। আর এরই সাথে টুর্নামেন্টে প্রথম জয়ের দেখা পেলো খেলাঘর দলটি। 

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে অনুষ্ঠিত আজকের এই ম্যাচে শুরুতে টসে হেরে ব্যাটিং করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৪৭ রান সংগ্রহ করেছিলো জহুরুল ইসলামের গাজি গ্রুপ। অবশ্য এই রানের পেছনে সবথেকে বেশি অবদান ছিলো অধিনায়ক জহুরুলেরই। কেননা ওপেনিংয়ে নেমে দুর্দান্ত একটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তিনি।

২৪৮ রানের জবাবে খেলতে নেমে মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন এবং অশোক মেনেরিয়ার জোড়া অর্ধশতকে ৯ বল হাতে রেখেই ৫ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে খেলাঘর। দলের পক্ষে অঙ্কন খেলেন ১০৯ বলে ৮৫ রানের দারুণ একটি ইনিংস। অপরদিকে মেনেরিয়া করেন ৫১ রান। 

এছাড়াও দুই ওপেনার রবিউল ইসলাম রবি এবং নাফিস ইকবাল করেন যথাক্রমে ৩২ ও ২৮ রান। শেষের দিকে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান অমিত মজুমদারের ব্যাট থেকেও আসে ২৪ রানের আরেকটি কার্যকরী ইনিংস। আর এরই সাথে শেষ পর্যন্ত ব্যাটসম্যানদের মিলিত প্রচেষ্টায় বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে নাফিস ইকবালের খেলাঘর।  

গাজি গ্রুপের ইনিংস- 

গাজি গ্রুপ ব্যাটিংয়ে নামার পর মাত্র ২২ রানে ইমরুল কায়েসের উইকেটটি হারিয়ে বসেছিলো।  ইমরুলকে মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনের হাতে ক্যাচ বানিয়ে প্রথম ব্রেক থ্রু এনে দেন সাদ্দাম হোসেন।

তবে ইমরুল ফিরলেও জহুরুল মমিনুল হককে সাথে নিয়ে ৭২ রানের জুটি গড়ে দলকে বিপদমুক্ত করেন।  মাত্র কয়েকদিন আগেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছিলেন মমিনুল। এবার ডিপিএলেও সেই পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার আভাস দিচ্ছিলেন তিনি।

ভিন্ন ফরম্যাটের ক্রিকেট হলেও যথারীতি দলের প্রয়োজনে ব্যাট হাতে নিজের সামর্থ্যের প্রমাণ অবশ্য দিতে সক্ষম হয়েছেন টাইগারদের এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। মাত্র ৪ রানের জন্য অর্ধশতক মিস করলেও দলকে বড় স্কোর গড়ার ভিত গড়ে দেন তিনি। 

আল মাহমুদের বলে ৪৬ রান করে মমিনুল ফিরলেও দারুণ ব্যাটিং করে সেঞ্চুরি তুলে নেন অধিনায়ক জহুরুল। তাঁর পাশাপাশি এদিন অসাধারণ খেলেছেন গাজির ভারতীয় ব্যাটসম্যান রজত ভাটিয়াও। তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ৬০ বলে অপরাজিত ৬১ রানের একটি অনবদ্য ইনিংস। এর ফলে শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেটে ২৪৭ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় গাজি গ্রুপ। 

গাজি গ্রুপ ক্রিকেটার্স একাদশ- 

জহুরুল ইসলাম (অধিনায়ক), ইমরুল কায়েস, মমিনুল হক, জাকির আলি অনিক, নাদিফ চৌধুরী, রজত ভাটিয়া, নুরুজ্জামান, ইয়াসিন আরাফাত, রুহেল আহমেদ, নাইম হাসান, কামরুল ইসলাম রাব্বি। 

খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি একাদশ- 

নাফিস ইকবাল (অধিনায়ক), নাজিমুদ্দিন, মইনুল ইসলাম, অমিত মজুমদার, রবিউল ইসলাম রবি, মোহাম্মদ সাদ্দাম, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, রাফসান আল মাহমুদ, হাসান মাহমুদ, তানভির ইসলাম, আল মেনেরিয়া। 

ছবি-সংগৃহীত