155 Views
বিগ ব্যাশ

পিটারসেনের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে স্টার্সের প্রথম জয়

সৈয়দ সামি
Published Date: 12 Jan 2018 | Update : 12 Jan 2018

মেলবোর্ন ডার্বিতে নিশ্চিত ফেভারিট হিসেবেই মাঠে নেমেছিল মেলবোর্ন রেনিগেডস। কারণ, মেলবোর্ন স্টার্স বিগ ব্যাশের এবারের আসরে ৫ ম্যাচ খেলে প্রতিটিতেই হারের মুখ দেখেছে। আর রেনিগেডসের এই ম্যাচের আগে মাত্র দুটি ম্যাচে হেরেছিল।


তবে ডকল্যান্ড স্টেডিয়ামে ইংলিশ ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসেনের দানবীয় ব্যাটিংয়ে ২৩ রানের জয় তুলে নিল স্টার্স। এবারের আসরে এটি তাদের প্রথম জয়।আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৬৭ রান সংগ্রহ করে স্টার্স।


জবাবে, ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ উইকেটে ১৪৪ রানে থামে রেনিগেডসের ইনিংস। এই জয়ের পরও অবশ্য সেমি ফাইনালে খেলার সম্ভাবনা খুব কম স্টার্সের। কারণ, ৬ ম্যাচের মাত্র ১টিতে জিতে আট দলের পয়েন্ট টেবিলের সপ্তম স্থানে রয়েছে তারা।


অবশ্য, রেনিগেডস তৃতীয় ম্যাচে হারলেও। নক আউটের দৌঁড়ে বেশ ভালো ভাবেই টিকে রয়েছে তারা। ৭ ম্যাচের চারটিতে জিতে ৮ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে  তিন নম্বরে রয়েছে দলটি। এদিকে, টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ওপেনার পিটার হ্যান্ডসকম্বের ৩৭ বলে ৪১ রানে দুর্দান্ত শুরু পায় স্টার্স।


যদিও অন্য ওপেনার বেন ডানক দলীয় ২ রানে কোনো রান না করেই সাজঘরে ফেরেন। তারপর হ্যান্ডসকম্বের সাথে ১১০ রানের জুটি গড়েন পিটারসেন। ১৪তম ওভারেই ১১০ পেরিয়েছে তারা। ওই ওভারেই হ্যান্ডসকম্বের উইকেট হারায় স্টার্স। পরের ওভারে পিটারসনও ফিরে যান সাজঘরে।


তবে, এই ইংলিশ তারকা আউট হওয়ার আগে ৪৬ বলে ৫ ছক্কা ও ৪ চারে করেছেন ৭৪ রান। পিটারসেন-হ্যান্ডসকম্বদের বিদায়ের পর ব্যাট হাতে স্টার্সের হাল ধরেন অজি হার্ড হিটার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ১৬ বলে ৩১ রান করে অপরাজিত থাকেন এই তারকা। ম্যাক্সওয়েল অবশ্য পরে দুর্দান্ত এক ক্যাচ নিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হন। 


এদিকে, এই মাঝারি লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দ্বিতীয় ওভার থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে মেলবোর্ন রেনিগেডস। ৫৬ রানে তারা টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যানকে হারায়। পেসার জ্যাকসন কোলম্যান শুরু থেকেই উইকেট নিয়ে চাপে ফেলেছেন রেনিগেডস ব্যাটসম্যানদের। অন্য বোলাররাও প্রভাব বিস্তার করে গেছেন পুরো ম্যাচ জুড়ে।


সর্বোচ্চ ২৬ রানের ইনিংসটি খেলেছেন ডিজে ব্রাভো। মোহাম্মদ নবী ও জ্যাক উইল্ডারমাথ সমান ২৩ রান করে আউট হয়েছেন। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে রেনিগেডস ১৪৪ রান করলে ২৩ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্টার্স। স্টার্সের হয়ে কোলম্যান ৩ উইকেট নিয়েছেন। ২টি করে উইকেট দখল করেছেন জন হাস্টিংস ও ড্যানিয়েল ওয়ারাল।