১ বল হাতে রেখে বিশ্ব একাদশের দুর্দান্ত জয়

১ বল হাতে রেখে বিশ্ব একাদশের দুর্দান্ত জয়

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে ইন্ডিপেন্ডেন্স কাপে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টি২০তে পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে ৭ উইকেটে উড়িয়ে দিয়েছে বিশ্ব একাদশ। এই জয়ের মধ্য দিয়ে সিরিজে ১-১ ব্যবধানে সমতা আনলো তারকা বহুল বিশ্ব একাদশ।

আজ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের শুরুতে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তানি অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। ব্যাটিংয়ে নেমে দারুণ শুরু করেন দুই ওপেনার ফখর জামান ও আহমেদ শেহজাদ। এই দুজনের জুটি থেকে আসে ৪১ রান।

ব্যক্তিগত ২১ রানে ফখর জামান, বিশ্ব একাদশের পেসার স্যামুয়েল বদ্রির বলে এলবিডব্লিউয়ের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন। এদিকে, বদ্রি গত ম্যাচে না খেললেও এই ম্যাচে স্বদেশী ড্যারেন স্যামির বদলি হিসেবে জায়গা পেয়েছেন একাদশে।

তারপর, আহমেদ শেহজাদের সাথে ৫৯ রানের জুটি গড়েন বাবর আজম। এদুজনের জুটি ভাঙেন ইমরান তাহির। দলীয় ১০০ রানে ৪৩ রান করা আহমেদ শেহজাদ ডেভিড মিলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন।

দ্রুত রান তুলতে থাকা বাবর আজম সাজঘরে ফিরেছেন স্যামুয়েল বদ্রির দ্বিতীয় শিকার হয়ে। ব্যক্তিগত ৪৫ রানে ডেভিড মিলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়েছেন তিনি।

তার কিছুক্ষণ পরেই থিসারা পেরেরার একই ওভারে আউট হয়ে ফিরে গেছেন ইমাদ ওয়াসিম ও পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। দুজনেই ক্যাচ দিয়েছেন প্রোটিয়া তারকা ইমরান তাহিরের হাতে।

নির্ধারিত ২০ ওভারে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান শোয়েব মালিকের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ১৭৪ রানের পুঁজি পায় পাকিস্তান। শেষ বলে ৩৯ রান করা মালিক পল কলিংউডের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়েছেন বেন ক্যাটিংয়ের বলে। অন্যপ্রান্তে ১ রান করে অপরাজিত ছিলেন সোহেল খান।

এই বড় স্কোর তাড়া করতে নেমে দারুণ শুরু করেন তামিম ইকবাল ও হাশিম আমলা। এ দুজনের জুটি থেকে আসে ৪৭ রান। ব্যক্তিগত ২৩ রানে সোহেল খানের বলে শোয়েব মালিকের অতিমানবীয় ক্যাচে সাজঘরে ফেরেন তামিম ইকবাল।

এরপর আমলা উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান টিম পেইনকে নিয়ে ইনিংস মেরামতে মনোযোগ দেন। কিন্তু ইমাদ ওয়াসিমের বলে পেইন বোল্ড হলে আবারো বিপর্যয়ে পড়ে বিশ্ব একাদশ।

পরবর্তীতে আমলা এবং অধিনায়ক ডু প্লেসিসের ৩৫ রানে ভর করে ১০০ এর কোটা পার করে বিশ্ব একাদশ। দলীয় ১০৬ রানের মাথায় মোহাম্মদ নেওয়াজের বল উড়িয়ে মারতে গিয়ে শাদাব খানের হাতে ক্যাচ দেন ডু প্লেসিস।

তারপর হাসিম আমলা ও থিসারা পেরেরা ঝড়ো ৬৯ রানের জুটিতে ১ বল বাকি থাকতেই ৭ উইকেটের বড় জয় পায় বিশ্ব একাদশ। ৫৫ বলে ৭২ রান করে হাসিম আমলা ও ১৯ বলে ৪৭ রান করে থিসারা পেরেরা দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়ে মাঠ ছাড়েন।

Posts Carousel

এই মাত্র

সর্বাধিক মন্তব্য

ভিডিও