সতীর্থদের প্রতি কৃতজ্ঞ মাশরাফি

সতীর্থদের প্রতি কৃতজ্ঞ মাশরাফি

শুরুটা আকরাম খান, খালেদ মাহমুদ সুজনদের সাথে। হালের মুস্তাফিজ থেকে শুরু করে হাবিবুল বাশার, পাইলটদের সাথেও খেলেছেন মাশরাফি। 

দিনে দিনে বেলা তো কম গেলোনা। মাশরাফিও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কাটিয়ে দিলেন ১৫ বছর। ইনজুরি সমস্যা খেলতে দেয়নি অনেক অনেক ম্যাচ। সমস্যা কাটিয়ে এতকিছুর পরেও ১৫ বছরের ক্যারিয়ারে সতীর্থদের সব সময়ই পেয়েছেন পাশে।

তাই তো কৃতজ্ঞতা প্রকাশে ভুল করলেন না নড়াইল এক্সপ্রেস। জনপ্রিয় অনলাইন পত্রিকা বিডিনিউজ২৪  কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন এবং বর্তমান সকল সতীর্থদের উদ্দেশ্যে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ পায় মাশরাফির কন্ঠে।

‘রকিবুল ভাই, লিপু ভাইদের সাথে তো নামতে পারেনি। আকরাম ভাই, সুজন ভাইদের হাত ধরে শুরুটা আমার। তাঁরা আজ বোর্ডে বড় বড় অবস্থানে আছে ভাবলেই ভাল লাগে।

বুলবুল ভাই, পাইলট ভাই, রফিক ভাইদের কথাও ভুলিনি। এর পর তো আমার সাথের ছেলেগুলোই দলে ঢুকলো। আশরাফুল, শরীফ, তাপস বৈশ্য, রাজিন ভাই, নাফিস ইকবালদের সাথেও খেললাম।

তারপর তো সাকিব-তামিম মুশফিকরা দলে ঢুকলো। এখন খেলছি মুস্তাফিজ-মিরাজদের সাথে। এই সবকটা প্রজন্মের সাথেই উপভোগ করেছি। যতদিন খেলবো উপভোগ করাটাই আমার লক্ষ্য থাকবে।’

২০০১ সালে ৮ই নভেম্বর বাংলাদেশের হয়ে টেস্ট অভিষেক ঘটে মাশরাফি বিন মর্তুজার। ইনজুরি জর্জরিত ক্যারিয়ারে খেলা ৩৬ টেস্টে ৭৮ উইকেট সংগ্রহ করেছেন বাংলাদেশের জাতীয় দলের রঙিন পোষাকের এই কাপ্তান।

Posts Carousel

এই মাত্র

সর্বাধিক মন্তব্য

ভিডিও